জামিয়া মিলিয়ার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর গুলি

0
217

দিল্লিতে জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান ভারতের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) বিরোধী প্রতিবাদ কর্মসূচিতে প্রকাশ্যে গুলি ছুড়েছেন এক যুবক। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরে পুলিশের সামনেই এই গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটে। এতে এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। গুলি করার আগে ওই যুবক ফেসবুক লাইভেও আসেন।

দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরে সিএএ বিরোধী শিক্ষার্থীদের ওপর গুলি ছোড়েন এক যুবক। ভারত, ৩০ জানুয়ারি। ছবি: রয়টার্স

দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরে সিএএ বিরোধী শিক্ষার্থীদের ওপর গুলি ছোড়েন এক যুবক। ভারত, ৩০ জানুয়ারি। ছবি: রয়টার্স এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, গুলির এই ঘটনায় অন্তত এক শিক্ষার্থী জখম হয়েছেন। গুলি ছোড়ার কয়েক মিনিট আগে ‘রামভক্ত গোপাল’ নাম ব্যবহার করে ওই যুবক ফেসবুকে লাইভে আসেন। বিক্ষোভকারীদের দিকে গুলি ছোড়ার সময় তিনি আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে বলতে থাকেন, ‘নে, মুক্তি নে’। বিক্ষোভকারীদের দিকে গুলি ছুড়তে ছুড়তে তিনি পিছু হটতে থাকেন। পিছু হটে তিনি সেদিকেই যাচ্ছিলেন, যেদিকে পুলিশ সদস্যরা অবস্থান করছিল।

বার্তা সংস্থা এএনআইর প্রতিবেদনে বলা হয়, গোপাল নামের ওই যুবক উত্তর প্রদেশের গৌতম বুদ্ধ নগর জেলার বাসিন্দা। ঘটনার পরপরই পুলিশ ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে। এমন সময় ওই যুবক গুলি ছোড়েন যখন সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা মহাত্মা গান্ধীর ৭২ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে পদযাত্রার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

ওই যুবকের গুলিতে আহত হন দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। ভারত, ৩০ জানুয়ারি। ছবি: রয়টার্স

ই যুবকের গুলিতে আহত হন দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী। ভারত, ৩০ জানুয়ারি। ছবি: রয়টার্স ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ওই যুবকের গায়ে কালো বুলেট প্রুফ জ্যাকেট ছিল। অস্ত্র উঁচিয়ে তিনি আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের দিকে এগিয়ে যান। ওই যুবকের অদূরেই পুলিশ সদস্যরা দাঁড়িয়ে আছেন।

ভারতজুড়েই সিএএবিরোধী আন্দোলন চলছে। জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আন্দোলনে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা। চলতি মাসের শুরুর দিকে নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর সরকার সমর্থকদের হামলার ঘটনাও ঘটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here